হোম আন্তর্জাতিক ভারতের সদ্য নির্বাচিত সাংসদদের ৪৬ শতাংশই ফৌজদারি মামলার আসামি

ভারতের সদ্য নির্বাচিত সাংসদদের ৪৬ শতাংশই ফৌজদারি মামলার আসামি

কর্তৃক Editor
০ মন্তব্য 15 ভিউজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ভারতে ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে নির্বাচিত সাংসদদের ৪৬ শতাংশই ফৌজদারি মামলার আসামি। এদের সংখ্যা ২৫১ জন। এর মধ্যে গুরুতর ফৌজদারি মামলা আছে ১৭০ জনের বিরুদ্ধে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্রের দেশ ভারতে সম্প্রতি পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ লোকসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর গত মঙ্গলবার (৪ জুন) এর ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

ফল প্রকাশের দুদিন পর বৃহস্পতিবার (৬ জুন) একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে নির্বাচন ও রাজনৈতিক সংস্কার নিয়ে কাজ করা অলাভজনক প্রতিষ্ঠান অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রেটিক রিফরমস (এডিআর)।

প্রতিবেদন মতে, লোকসভার নবনির্বাচিত ৫৪৩ সদস্যের মধ্যে ২৫১ জনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রয়েছে এবং তাদের মধ্যে ২৭ জন বিভিন্ন সময় দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন।

এর আগেও ফৌজদারি মামলার অনেক আসামি লোকসভার সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তবে এবারই সর্বোচ্চ সংখ্যক রাজনীতিক নির্বাচিত হয়েছেন যাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি অভিযোগ রয়েছে।

২০১৯ সালে মোট ২৩৩ জন সাংসদ (৪৩ শতাংশ) নিজেদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রয়েছে বলে জানিছিলেন। ২০১৪ সালে এই সংখ্যা ছিল ১৮৫ জন (৩৪ শতাংশ)।

২০০৯ সালে ছিল ১৬২ জন (৩০ শতাংশ) এবং ২০০৪ সালে ১২৫ জন (২৩ শতাংশ)। অর্থাৎ প্রতিবছরই নির্বাচিত ফৌজদারি মামলার আসামির সংখ্যা বেড়েছে।

বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ২০০৯ সাল থেকে ঘোষিত ফৌজদারি মামলায় সাংসদের সংখ্যা ৫৫ শতাংশ বেড়েছে। ফৌজদারি আসামিদের মধ্যে বিজেপির সদস্যদের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। বিজেপির বিজয়ী ২৪০ জনের মধ্যে ৯৪ জনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা আছে।

আর কংগ্রেসের বিজয়ী ৯৯ সদস্যের মধ্যে ২১ জনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা আছে। এছাড়া লোকসভা নির্বাচনে বিজয়ীদের চারজনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা ও ২৭ জনের বিরুদ্ধে হত্যা প্রচেষ্টার মামলা আছে। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন