হোম আন্তর্জাতিক পাকিস্তানে সরকার গঠন: বন্ধুত্বের ঘোষণা দিয়ে শত্রুতার পথে নওয়াজ-বিলাওয়াল!

পাকিস্তানে সরকার গঠন: বন্ধুত্বের ঘোষণা দিয়ে শত্রুতার পথে নওয়াজ-বিলাওয়াল!

কর্তৃক Editor
০ মন্তব্য 62 ভিউজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

নির্বাচনের পর একক সংখ্যাগরিষ্ঠতার অভাবে পাকিস্তানে সরকার গঠন নিয়ে যখন চরম অনিশ্চয়তা, তখনই জোট করার ঘোষণা দিয়েছিল পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) ও বিলাওয়াল ভুট্টোর দল পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি)। কিন্তু দর কষাকষি করতে গিয়ে বেধেছে বিপত্তি, সৃষ্টি হয়েছে মতবিরোধের।

সরকার গঠনের প্রশ্নে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের দল পিএমএল-এন ও পিপিপির মধ্যে সবশেষ দুই দফার বৈঠকেও কোনো সিদ্ধান্ত আসেনি। এ অচলাবস্থার জন্য এখন পিএমএল-এনকে দুষছেন পিপিপি চেয়ারম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ডন বলছে, নতুন সরকার গঠন নিয়ে সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) পিএমএল-এন ও পিপিপির পঞ্চম দফা বৈঠক কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই শেষ হয়। এরপর মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) আবারও দুই পক্ষ বৈঠকে বসলেও, কোনো অগ্রগতি হয়নি বলে জানা গেছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমের তথ্যানুসারে, গেল ৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদ নির্বাচনে ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা সবচেয়ে বেশি ৯২ আসনে জয়ী হন। নওয়াজ শরিফের পিএমএল-এন ৭৯ ও বিলাওয়ালের পিপিপি জয় পায় ৫৪ আসনে। বাকি আসনগুলোতে অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জয়ী হয়।

নির্বাচনে কোনো দলই সরকার গঠনের মতো প্রয়োজনীয় আসন পায়নি। জাতীয় পরিষদের মোট ৩৩৬ আসনের মধ্যে সরকার গঠন করতে অন্তত ১৬৯ আসন দরকার। জল্পনা শুরু হয়েছে, ২৯ ফেব্রুয়ারি জাতীয় পরিষদের অধিবেশন শুরুর আগে সাংবিধানিক সময়সীমা পর্যন্ত দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা পিএমএল-এন ও তৃতীয় অবস্থানে থাকা পিপিপির মধ্যে আলোচনা ও দর-কষাকষি চলতে থাকতে পারে।

দুই দলের সূত্র ডনকে জানিয়েছে, পিপিপির কারণে সরকার গঠন নিয়ে আলোচনা দীর্ঘায়িত হতে পারে। সরকারে যোগ দিতে নিজ দলের ভেতরসহ বিভিন্ন পক্ষ থেকে পিপিপি বেশ চাপের মধ্যে রয়েছে।

তবে সরকার গঠনে সিদ্ধান্তহীনতার জন্য পরোক্ষভাবে পিএমএল-এনকে দায়ী করেছেন পিপিপি চেয়ারম্যান বিলাওয়াল। তিনি বলেছেন, যদি কেউ তাদের অবস্থান পাল্টাতে প্রস্তুত না থাকে, তাহলে সরকার গঠনে সামনে অচলাবস্থা দেখছেন তিনি।

সাংবাদিকদের বিলাওয়াল বলেন, পিপিপি ও তিনি নিজেদের অবস্থানে অনড়। কোনোভাবেই এই অবস্থান থেকে সরবেন না বলেও জোর দিয়ে বলেছেন পাকিস্তানের সাবেক এই পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

বিলাওয়াল বলেন, যদি অন্য কেউ নিজেদের অবস্থান পরিবর্তন করেন, তাহলে অগ্রগতি হতে পারে। যদি তারা অবস্থান পরিবর্তনে প্রস্তুত না থাকে, তাহলে আমি সামনে অচলাবস্থা দেখছি।

তার ভাষ্য, আমি যদি পিএমএল-এনকে সমর্থন করতে চাই, তাহলে আমাকে সেটা আমার শর্তে মেনে করতে হবে, তাদের শর্তে নয়। আন্তরিকতার অভাবেই বিলম্ব হচ্ছে। যত দ্রুত বিষয়টির সমাধান হবে, ততই স্থিতিশীলতা ও আগামী সরকারের জন্য তা ভালো হবে।

তবে বিলাওয়ালের এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় এখন পর্যন্ত নওয়াজ শরিফের দলের কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন