হোম ফিচার নয়াপল্টনে ফখরুল: এই সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে দেবে না বিএনপি

নয়াপল্টনে ফখরুল: এই সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে দেবে না বিএনপি

কর্তৃক Editor
০ মন্তব্য 142 ভিউজ

রাজনীতি ডেস্ক:

মামলার ভয় পেলে চলবে না জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেছেন, মামলা-নির্যাতন ভয় পেলে চলবে না। ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজপথে দাঁড়াতে হবে। যে কোনো মূল্যে এই সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে দেয়া হবে না।

সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, অন্য কোনো কথা শুনতে চাই না। পদত্যাগ করুন, সংসদ বিলুপ্ত করে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা তুলে দিন। আর কালবিলম্ব নয়, এখনই সময় এই সরকারকে বিদায় নিতে হবে।

শুক্রবার (১৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। এ সমাবেশের আয়োজন করে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুস সালাম। সঞ্চালনা করেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন, নির্বাচনের তারিখ যতই ঘনিয়ে আসছে বিএনপি নেতাকর্মীদের গায়েবি মামলা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হচ্ছে। নির্বাচন থেকে বিএনপিকে দূরে সরিয়ে রাখতিই আটক করা হচ্ছে, মিথ্যা মামলা দায়ের চলছে।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বিএনপি মহাসচিব বলেন, মামলার ভয় পেলে চলবে না। নির্যাতন ভয় পেলে চলবে না। ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজপথে দাঁড়াতে হবে। অন্যকোনো কথা শুনতে চাই না।

ক্ষমতাসীন দলের উদ্দেশে ফখরুল বলেন, এখনই পদত্যাগ করুন। সংসদ বিলুপ্ত করে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা তুলে দিন। আর কালবিলম্ব নয়, এখনই সময় এই সরকারকে বিদায় নিতে হবে। যে কোনো মূল্যে এই সরকারের অধীনে বিএনপি হতে দেয়া হবে না।

সমাবেশে স্থায়ী কমিটির সদস্য মঈন খান বলেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্রের অপমৃত্যু ঘটেছে। নতুন মোড়কে বাকশাল কায়েম হয়েছে। সরকার ক্ষমতায় থাকতে মানুষের মৌলিক অধিকার হরণ করেছে। সংসদ ভেঙে দিয়ে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নতুন কমিশন গঠন করে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আয়োজন করতে হবে।

তিনি বলেন, মানবাধিকার কর্মীদের জেলে পাঠিয়ে সরকার মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে। আমলাদের ক্ষমতা আর প্রশাসন দিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকা যাবে না। মানুষ মাঠে নেমেছে, সরকারের উপায় নেই। মামলা হামলা করে আন্দোলন থেকে বিএনপিকে সরানো যাবে না। নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারকে বিদায় দেয়া হবে।

স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, এই সরকারের সময় শেষ। পতন সময়ের ব্যাপার মাত্র। মানুষ জেগেছে, সরকার থাকতে পারবে না।

সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত নেতাকর্মীদের ঘরে না ফেরার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, দুর্বার আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারকে বিদায় দেয়া হবে।

সমাবেশে স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, বর্তমান প্রশাস ও সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচনে যাবে না বিএনপি। প্রশাসনের সব স্তরে আওয়ালীগ খুঁটি গেড়ে বসেছে। দলীয় কর্মীদের প্রশাসনে রেখে বিএনপি নির্বাচনে যাবে না। বাড়াবাড়ি না করে দ্রুত বিদায় নেন।

তিনি আরও বলেন, আলাদত ও পুলিশের মাধ্যমে এই সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়। বহু নেতাকর্মীকে ইতোমধ্যে মিথ্যা মামলায় জেল দেয়া হচ্ছে। জেলে নিয়ে, মিথ্যা মামলা দিয়ে সরকারের শেষ রক্ষা হবে না।

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন